ধর্মনাশ

ধর্মনাশ

ধর্ম শান্তির জন্য। ধর্ম মানুষকে সুশৃঙ্খল করে, সত্য মিথ্যার পার্থক্য বুঝিয়ে সুশিক্ষায় সুশিক্ষিত করে। শুধুমাত্র দুষ্টবুদ্ধিসম্পন্নরা সবকিছুতে ধর্মের দোষ খোঁজে। ধর্মকে অপদস্ত করার জন্য অধার্মিকরা যাচ্ছেতাই বলে এবং অযৌক্তিক উদাহারণ উপস্থিত করে। ধর্মান্ধরা শুধু তা দেখে যা ওরা দেখতে চায়। ধর্মধ্বজী এবং ধর্মদ্বেষীরা হলো শান্তির শত্রু, শান্তিজল ছিটিয়ে ওরা অশান্তি উৎপাদন করে। ধর্মপালন এবং ধৈর্যাবলম্বন বলা যত সহজ চর্চা তত কঠিন। ধর্মাধর্ম এবং অধমাধম শব্দের অর্থ কয়জন জানে? মনে রাখতে হবে, ধার্মিকরা ধর্মনাশ করে না এবং নাটকীয় পুণ্যকর্মে কেউ কখন পুণ্যাত্মা হতে পারেনি। তন্ত্রমন্ত্রে আত্মনিয়ন্ত্রণ হয় না এবং অন্যায় অত্যাচার করে ধর্মাত্মা হওয়া যায় না। ধর্মকে যে বকাবকি করে তার ধর্মহানি হয়, ধর্মের মানহানি হয় না। ধর্ম কোনো ক্রীড়াপ্রতিযোগীতা অথবা হাস্যপরিহাসের বিষয় নয়, ধর্ম অত্যন্ত মারাত্মক বিষয়। ধর্মকে সম্মান করতে হবে নইলে মানব ধর্মশাস্ত্র বিবস্ত্র হবে।

ধর্মাধর্ম- ধর্ম ও অধর্ম। অধমাধম – অধমের চেয়েও নিকৃষ্ট; অত্যন্ত নীচ।

© Mohammed Abdulhaque

উপন্যাস সমগ্র

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s