ধর্মবিশ্বাস

মৃত্যু এবং ধর্ম থেকে মানুষ দূরে থাকতে চায়। ধর্ম হলো আয়না। মানুষ আত্মদর্শন করতে চায় না। অন্যের সকল দোষ পরখ করে খুঁটিয়ে দেখে, নিজেকে নির্দোষ ভাবে। অন্যের খাটের পায়া ভেঙে সীমানা নির্দেশ করার জন্য খুঁটি গাড়ে। মানুষ দুনিয়ার সকল স্বস্তি চায় কিন্তু স্বাস্তিপাঠ করতে চায় না। আশাতিরিক্ত সাফল্যের জন্য মানুষ বুঝেশুঝে অন্যের অনিষ্ট করে। ধর্মকে হাতিয়ার বানিয়ে সম্পদ হাতিয়ে নিতে চায়, কিন্তু ধর্মচর্চা করতে চায় না। মানুষ স্বস্তির সাথে যোগাসনে বসতে পারে না। ষড়রিপুরা মানুষকে কামড়ায়। মানুষ ভুলে যায়, ধর্মকর্মে আত্মোন্নতি হয়, ধর্মবিশ্বাসে মানুষ বিশ্বস্ত হয়, আশীর্বাদে বিবাদ অপবাদ দূর হয়। অন্যের হিতসাধনে মানুষ অবিশুদ্ধ হয়। মঙ্গলকর্মারম্ভে মঙ্গলকথন না করলে অমঙ্গল হয়। তিক্ত সত্য হলো, ধর্মবিশ্বাস এবং ধার্মিক শব্দ এখন তৃপ্তিসাধনের জন্য ব্যবহৃত হয়।

© Mohammed Abdulhaque

One thought on “ধর্মবিশ্বাস

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s