পূর্বরাগ

“ভাবগম্ভীর ভালোবাসার গল্প”

নায়ক হলো প্রতিপত্তিশালী ব্যক্তির একমাত্র সন্তান। বাবার পছন্দের পাত্রীর সাথে বিবাহে আবদ্ধ হতে অসম্মত হলে রাগের মাথায় বাবা তাকে ত্যাজ্য করেন এবং সে শূণ্য হাতে সিলট শহরে যায়। রিকশা করে বাসা খুঁজার সময় চালকের কাছে সাহায্য চাইলে, চালক তাকে শহরের এক প্রান্তে নিয়ে যায়। সে বাসার মালিকের স্ত্রী সন্তানকে আত্মিয়রা পরিকল্পিতভাবে হত্য করেছিল। সব জেনে নিজের মৃত্যু নিশ্চিত করার জন্য নায়ক বাসার মালিকের পালকপুত্র হতে চাইলে উনি তাকে সন্তানের মত গ্রহণ করেন। পরে এক কবির সাথে দেখা করার জন্য স্বপ্নাদেশ পেয়ে শহরে বেড়াতে যেয়ে নায়িকার বাবার সাথে দেখা হয়। ইয়া মোটা তরমুজ কিনে উনি বিপাকে পড়লে সে বহন করে বাসায় পৌঁছে দেয় এবং কথায় কথায় কামরা ভাড়া করতে চায় বললে, উনি তাকে এক কামরা ভাড়া দেন। পরে নায়িকার সাথে পরিচিত হয় এবং তাদের বিয়ের পর বেড়াতে বেরিয়ে তার বাবার সাথে দেখা হয়। তার বাবা বুকের ব্যথায় আক্রন্ত হলে সে দৌড়ে যেয়ে বাবাকে ধরে এবং বাবা ভুল স্বীকার করে তাকে বাড়ি নিয়ে যান এবং সবার সাথে মিলেমিশে জীবনযাপন করে।

বই সম্পাদনা হচ্ছে সত্বর আপলোড করব।

পূর্বরাগ

© Mohammed Abdulhaque