ধর্মনাশ

ধর্মনাশ

ধর্ম শান্তির জন্য। ধর্ম মানুষকে সুশৃঙ্খল করে, সত্য মিথ্যার পার্থক্য বুঝিয়ে সুশিক্ষায় সুশিক্ষিত করে। শুধুমাত্র দুষ্টবুদ্ধিসম্পন্নরা সবকিছুতে ধর্মের দোষ খোঁজে। ধর্মকে অপদস্ত করার জন্য অধার্মিকরা যাচ্ছেতাই বলে এবং অযৌক্তিক উদাহারণ উপস্থিত করে। ধর্মান্ধরা শুধু তা দেখে যা ওরা দেখতে চায়। ধর্মধ্বজী এবং ধর্মদ্বেষীরা হলো শান্তির শত্রু, শান্তিজল ছিটিয়ে ওরা অশান্তি উৎপাদন করে। ধর্মপালন এবং ধৈর্যাবলম্বন বলা যত সহজ চর্চা তত কঠিন। ধর্মাধর্ম এবং অধমাধম শব্দের অর্থ কয়জন জানে? মনে রাখতে হবে, ধার্মিকরা ধর্মনাশ করে না এবং নাটকীয় পুণ্যকর্মে কেউ কখন পুণ্যাত্মা হতে পারেনি। তন্ত্রমন্ত্রে আত্মনিয়ন্ত্রণ হয় না এবং অন্যায় অত্যাচার করে ধর্মাত্মা হওয়া যায় না। ধর্মকে যে বকাবকি করে তার ধর্মহানি হয়, ধর্মের মানহানি হয় না। ধর্ম কোনো ক্রীড়াপ্রতিযোগীতা অথবা হাস্যপরিহাসের বিষয় নয়, ধর্ম অত্যন্ত মারাত্মক বিষয়। ধর্মকে সম্মান করতে হবে নইলে মানব ধর্মশাস্ত্র বিবস্ত্র হবে।

ধর্মাধর্ম- ধর্ম ও অধর্ম। অধমাধম – অধমের চেয়েও নিকৃষ্ট; অত্যন্ত নীচ।

© Mohammed Abdulhaque

উপন্যাস সমগ্র

স্বার্থান্বেষী এবং স্বার্থান্ধ

স্বার্থান্বেষী এবং স্বার্থান্ধের_গল্প

দেশের মানুষ এখন মৃত্যু কামনা করে, হয়তো অদ্য মহামারি শুরু হবে। মসজিদ মাদ্রাসায় কী শিক্ষা দেওয়া হয়? আল্লাহর কাছ থেকে সাহায্য আসছে না কেন? হুজুররা জানেন, আলিম এবং মজলুম যখন জালিমের মুখাপেক্ষী হয় তখন আল্লাহর পক্ষ থেকে অভিশম্পাত আসে। সম্পদ এবং ক্ষমতার জন্য লোভীরা মরিয়া হয়েছে। ধর্মাধিকারের নামে ধর্মহানি করে। ধর্মের ষাঁড়রা অসহায়ের সর্বনাশ করে। ধর্মান্ধদের দুরাচারে পরিবেশ অন্ধকারাচ্ছন্ন হচ্ছে। স্বার্থান্বেষী এবং স্বার্থান্ধদের সুবাদে সমাজে অসুবিধা শুরু হয়েছে।জিঘাংসা, ক্ষমতার অপব্যবহার এবং সীমালংঘনের কারণ অনায়াত্যাচার বেড়ে সামাজিক সমস্যা শুরু হয়েছে। সত্যনিষ্ঠ শব্দের অর্থ বুঝে সত্যপরায়ণ হলে সমাজে শান্তি প্রতিষ্ঠিত হবে, নইলে অতিষ্ট হয়ে মৃত্যুকে বরণ করতে হবে।

© Mohammed Abdulhaque

উপন্যাস সমগ্র

স্বর্গে যাওয়ার স্বপ্ন

স্বর্গে-যাওয়ার-স্বপ্ন

স্বর্গে যাওয়ার স্বপ্ন এখন আর তেমন কেউ দেখে না। মারামারি করাবার জন্য ধর্ম শব্দ ব্যবহৃত হয়। নরক এবং রৌরব বইয়ের ভিতরে বন্দি। শেষ বিচারের পর ওরা আসল বেশে প্রকাশ হবে। আমার কথা বিশ্বাস না হলে চোখ বুজে তকিয়ে দেখো, স্বর্গের কিশোর কিশোরীরা সালসাবিল ঝরণার পাশে দাঁড়িয়ে স্বর্গিয় হাসি হেসে বলছে, ধর্ম শান্তির জন্য, অশান্তির জন্য নয়। অসত্যকে পরিবর্জন করে সত্যকে অর্জন করে স্বর্গে আসো। স্বর্গে সকল প্রকার সুখ আছে।

© Mohammed Abdulhaque

সাহিত্যসমগ্র