পারিপার্শ্বিক অভিশাপ

পারিপার্শ্বিক _অভিশাপের_গল্প

জ্ঞানপাপীদের উপদেশ, নির্দেশ এবং পরার্মশ অনুযায়ী পরিকল্পনা করে আবাল বৃদ্ধ বনিতার অধিকার হরণ করা হয়েছে। বিশেষ করে অসহায়রা এখন সর্বহারা হয়েছে, আইনের অপব্যবহার করে তাদের ভাগ্য এবং ভাতার ভুষ্টিনাশ করা হয়েছে। পাপের প্রভাব এবং অসহায়ের দীর্ঘশ্বাসে বাতাস তপ্ত হচ্ছে, বিশ্বের পরিবেশে এখন অভিশাপ! বৈশ্বিক উষ্ণতা হলো বায়ুমণ্ডলীয় অভিশাপ। সীমালঙ্ঘনকারীদের ধ্বংস অনির্বার্য। আল্লাহর পক্ষ থেকে গজব আসলে কেউ নিস্তার পাব না।

© Mohammed Abdulhaque

উপন্যাস সমগ্র

শৈল্পিক নগ্নতা

শৈল্পিক_নগ্নতার_গল্প

নগ্নতা একটা শিল্প এবং নগ্নতায় শৈল্পিকতাও আছে। বর্তমানে নগ্নতার বাজার তুঙ্গে। নেংটা সত্য কেউ পছন্দ করে না এবং নেংটা নর-নারীর দিকে তাকিয়ে থাকা যায় না, সত্যি বিরক্ত লাগে। তবে শিল্পসুলভ রূপদানে আকর্ষক নগ্নের দিকে তাকিয়ে অনেক কিছু চিন্তা করা যায় এবং অনেক লাভবানও হয়। শৈল্পিকভাবে নগ্ন হওয়ার জন্য কোটিকোটি টাকা খরচ করে। নগ্নতা এখন শিল্পিত হয়েছে। সোজা কথায় এককথা হলো, ইদানীং কোটিকোটি টাকা খরচ করে নারীরা নেংটা হয়ে হাঁটে।

© Mohammed Abdulhaque

উপন্যাস সমগ্র

শুধু দীর্ঘশ্বাস

শুধু_দীর্ঘশ্বাসের_গল্প

বাংলাদেশ হলো অহংকারীদের আখড়া! অহংকারীকে আল্লাহ ঘৃণা করেন। আমার কথা বিশ্বাস করতে হবে না, চাইলে সত্যাসত্য যাছাই করতে পারবেন। সরকার শব্দের প্রকৃত অর্থ সকলে জানে না। বেশির ভাগ এই বিশ্বাস মনে পোষণ করে, সরকার শব্দের আওতায় যেতে পারলেই হলো, টাকার পাহাড়র বানাতে সময় লাগবে না। রীতি নীতি না বুঝে প্রতিপত্তিশালী হওয়ার জন্য গণ্ডমূর্খরা মৃত্যুর ঠিকাদারি করে। চোরকুঠুরিতে শুয়ে আরাম করে চূড়ামণি, হল্লাগাড়ি করে চোর-ছ্যাঁচড় আর মার্কামারা চোরে। দেশ ভরছে ঠগ বাটপাড়ে, জং ধরে সত্যনিষ্ঠ শব্দ নষ্ট হচ্ছে।
মনে রাখতে হবে, প্রতিবাদে পরিবর্তন হয়, প্রতিবাদীরা প্রতিদ্বন্দী নয়।

© Mohammed Abdulhaque

উপন্যাস সমগ্র

kabita

kabita

I stare at the book of poems to write a poem. The poem does not talk to me. A woman named Kabita looked at me and kept on smiling.

একটা কবিতা

একটা কবিতা লেখার জন্য আমি কবিতার খাতার দিকে তাকিয়ে থাকি। কবিতা আমার সাথে কথা বলে না। কবিতা নামের নারী আমার দিকে তাকিয়ে মুচকি হাসে।

© Mohammed Abdulhaque

সাহিত্যসমগ্র

স্বর্গে যাওয়ার স্বপ্ন

স্বর্গে-যাওয়ার-স্বপ্ন

স্বর্গে যাওয়ার স্বপ্ন এখন আর তেমন কেউ দেখে না। মারামারি করাবার জন্য ধর্ম শব্দ ব্যবহৃত হয়। নরক এবং রৌরব বইয়ের ভিতরে বন্দি। শেষ বিচারের পর ওরা আসল বেশে প্রকাশ হবে। আমার কথা বিশ্বাস না হলে চোখ বুজে তকিয়ে দেখো, স্বর্গের কিশোর কিশোরীরা সালসাবিল ঝরণার পাশে দাঁড়িয়ে স্বর্গিয় হাসি হেসে বলছে, ধর্ম শান্তির জন্য, অশান্তির জন্য নয়। অসত্যকে পরিবর্জন করে সত্যকে অর্জন করে স্বর্গে আসো। স্বর্গে সকল প্রকার সুখ আছে।

© Mohammed Abdulhaque

সাহিত্যসমগ্র